বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু

জুন ৬, ২০১৫ 254 views 0
একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু

প্রথম নিউজ ডেস্ক মাধ্যমিক (এসএসসি) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। বিগত কয়েক বছরের মতো এবারও মাধ্যমিকের ফলের ভিত্তিতেই শিক্ষার্থী ভর্তি করানো হবে।

মোবাইল ফোনে এসএমএস এবং অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া চলবে।

শনিবার (৬ জুন) রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে এসএমএস এবং অনলাইনে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ শনিবার সকালে জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমিতে (নায়েম) ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

গত ৩০ মে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়, যাতে উত্তীর্ণ হয়েছে ৮৭ দশমিক ০৪ শতাংশ শিক্ষার্থী।

দেশের সব সরকারি-বেসরকারি কলেজে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু করার নির্দেশ দিয়ে গত ১ জুন ভর্তি নীতিমালা জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ভর্তি নীতিমালা অনুযায়ী, এবারের এসএসসিতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী ছাড়াও ২০১৩ ও ২০১৪ সালে পরীক্ষায় উত্তীর্ণরাও একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারবে।

আগামী ১ জুলাই থেকে ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ক্লাশ শুরু হবে।

ভর্তির জন্য আগামী ১৮ জুন পর্যন্ত আবেদন করা যাবে। অনলাইনে www,xiclassadmission.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদনের করতে হবে। যারা ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করেছে তারা ২১ জুন পর্যন্ত আবেদন করতে পারবে।

এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য টেলিটকের ওয়েবসাইটে (www.teletalk.com.bd) পাওয়া যাবে।

ভর্তির জন্য টেলিটক মোবাইল থেকে এসএমএস করে ১৫০ টাকা জমা দিয়ে অনলাইনে আবেদন করা যাবে। সর্বোচ্চ পাঁচটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পছন্দক্রমে রাখতে পারবে শিক্ষার্থী। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আবেদনে খরচ পড়বে ১২০ টাকা।

আগামী ২৫ জুন ভর্তির জন্য মনোনীত শিক্ষার্থীদের তালিকা এসএমএস, স্ব স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট ও www,xiclassadmission.gov.bd এ প্রকাশ করা হবে। বিলম্ব ফি ছাড়া ৩০ জুন পর্যন্ত ভর্তি হওয়া যাবে। আর বিলম্ব ফি দিয়ে ২৬ জুলাই পর্যন্ত ভর্তি চলবে।

নীতিমালা অনুযায়ী, স্কুল ও কলেজ সংযুক্ত প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অগ্রাধিকারভিত্তিতে নিজ প্রতিষ্ঠানে ভর্তির সুযোগ পাবে।

মফস্বল/পৌর (উপজেলা) এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সেশন চার্জসহ এক হাজার টাকা, পৌর (জেলা সদর) এলাকায় দুই হাজার টাকা এবং ঢাকা ছাড়া অন্য মেট্রোপলিটন এলাকায় তিন হাজার টাকার বেশি ফি নেওয়া যাবে না।

ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থী ভর্তিতে পাঁচ হাজার টাকার বেশি নিতে পারবে না।

ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় আংশিক এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন ও এমপিও বর্হির্ভুত শিক্ষকদের বেতন-ভাতা দেওয়ার জন্য ভর্তির সময় মাসিক বেতন, সেশন চার্জ ও উন্নয়ন ফি বাবদ বাংলা মাধ্যমে নয় হাজার টাকা এবং ইংরেজি মাধ্যমে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

উন্নয়ন খাতে কোনো প্রতিষ্ঠান তিন হাজার টাকার বেশি নিতে পারবে না বলে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

দরিদ্র, মেধাবী ও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ভর্তিতে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ফি যতোদূর সম্ভব মওকুফ করতে বলা হয়েছে।

কোনো শিক্ষার্থীর কাছ থেকে অনুমোদিত ফি’র বেশি নিলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • সর্বশেষ
  • সবচেয়ে পঠিত

জনমত জরিপ

অং সাং সু চির নোভেল পুরুষ্কার প্রত্যাহার করার জন্য আপনারা কি একমত ?

View Results

Loading ... Loading ...
ব্রেকিং নিউজ