রবিবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৭

ছাত্রদলের ভবিষ্যত পাঁচ কাণ্ডারির নাম তারেকের হাতে

জুলাই ২৮, ২০১৭ 4750 views 0
ছাত্রদলের ভবিষ্যত পাঁচ কাণ্ডারির নাম তারেকের হাতে

প্রথম নিউজ প্রতিবেদক : ছাত্রদল নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আর দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মধ্যে ঠান্ডা লড়াই চলছে। খালেদা চান একটু অভিজ্ঞদের হাতে নেতৃত্ব তুলে দিতে। কিন্তু তারেকের তারুণ্য নির্ভর ছাত্রদল। লন্ডনে চিকিৎসক করাতে যাওয়া খালেদা জিয়া বর্তমানে ছেলে তারেকের বাসায় থাকছেন। সেখানেই থাকবেন প্রায় ৪০ দিন।

 

তাই ছেলের সঙ্গে দলের যাবতীয় হিসেব-নিকেশে বসেছেন দু’জনে। লন্ডনের একটি সূত্র জানিয়েছে, জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের নতুন নেতৃত্বের জন্য ১০ জনকে গুডবুকে নিয়েছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। এদের মধ্য থেকে সুপার ফাইভ চূড়ান্ত করার প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে গেছে। তবে মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ার পরও নতুন কমিটি নিয়ে দৃশ্যত কোনো তৎপরতা দেখা না গেলেও নেতাকর্মীদের মধ্যে এ নিয়ে ব্যাপক উৎসাহ লক্ষ করা যাচ্ছে। লন্ডন সফররত বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে সেই ১০ জনের তালিকা দিলে তিনি সেখান থেকে ৫ জনকে বাছাই করেছেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

 

নতুন কমিটির বিষয়ে সবাই তাকিয়ে আছেন সাংগঠনিক নেত্রী খালেদা জিয়ার দিকে। এমন পরিস্থিতিতে যারা নতুন কমিটিতে পদ পেতে চান, তারা শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। দুঃসময়ে দলের পাশে না থাকা নেতারাও সুপার ফাইভে পদ নিশ্চিত করতে সর্বোচ্চ তদবির অব্যাহত রেখেছেন।

 

এদিকে বিএনপির একটি সূত্র জানিয়েছে, মেয়াদোত্তীর্ণ ছাত্রদলের নতুন কমিটি নিয়ে চিন্তা-ভাবনা অনেক দিন থেকেই করছেন খালেদা জিয়া। এতে চমক থাকবে। ১০ নেতার মধ্য থেকেই সুপার ফাইভ চূড়ান্ত করার অনানুষ্ঠানিক কার্যক্রমও শুরু হয়েছে।

 

তারেক রহমানের পরামর্শেই সেই সুপার ফাইভ চূড়ান্ত করা হচ্ছে। সূত্রটি আরো জানায়, বিরোধী দলের এ পরিস্থিতিতে যাদের সংগঠনের ভেতরে-বাইরে ক্লিন ইমেজ আছে, তারাই কমিটিতে স্থান পাবেন। ভবিষ্যতে কঠিন পরিস্থিতির বিষয়টি বিবেচনায় রেখে যোগ্য ও দক্ষ নেতাদের কাধেই দায়িত্ব দেয়া হবে। পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, বিএনপির এ সংকটকালে ছাত্রদলের কিছু নেতা নিজেদের মধ্যে অপপ্রচার অব্যাহত রেখেছেন।

 

ফলে খুঁড়িয়ে চলা এ সংগঠনটির অগ্রযাত্রা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। নতুন বছরে নতুন কমিটি গঠনের মাধ্যমে এই অপপ্রচার কলঙ্কমুক্ত হতে পারে। এদিকে নতুন কমিটিতে শীর্ষ পদে অনেকের নাম শোনা গেলেও মূল আলোচনা ১০ নেতাকে ঘিরেই। এদের মধ্যে বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান ও সিনিয়র সহসভাপতি মামুনুর রশিদ মামুনের মধ্যে যে কোনো একজনকে নতুন কমিটির শীর্ষ পদে রাখার গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

 

এছাড়া সুপার ফাইভে যাদের নাম আলোচনায় রয়েছে তারা হলেন- দলের সহসভাপতি এজমল হোসেন পাইলট, আবু আতিক আল হাসান মিন্টু, ইখতিয়ার কবির, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, যুগ্ম সম্পাদক বায়েজিদ আরেফিন, মিয়া রাসেল, মেহবুব মাসুম শান্ত, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক সরদার আমিরুল ইসলাম, ক্রীড়া সম্পাদক সৈয়দ মাহমুদ। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, দুই বছরের জন্য গঠিত কমিটি ২০১৪ সালের ১৪ অক্টোবর রাজীব আহসানকে সভাপতি ও আকরামুল হাসানকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৫৩ সদস্যের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়।

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনমত জরিপ

অং সাং সু চির নোভেল পুরুষ্কার প্রত্যাহার করার জন্য আপনারা কি একমত ?

View Results

Loading ... Loading ...
ব্রেকিং নিউজ