রবিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

টেকনােফ হাট বাজার সমূহে স্বর্ণকারের দোকানের ছড়াছড়ি

জুন ১৫, ২০১৫ 37 views 0
টেকনােফ হাট বাজার সমূহে স্বর্ণকারের দোকানের ছড়াছড়ি

প্রথম নিউজ প্রতিবেদক টেকনাফ উপজেলা পৌরসভার হাট বাজার সমূহে স্বর্ণকারের দোকানের ছড়াছড়ি।

যা প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। যখন যতই বৃদ্ধি পাচ্ছে গ্রাহক ও দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিটি দোকানে যেমন গ্রাহকদের তিল ধরনের ঠাইঁ নেই। তেমনি স্বর্ণ তৈরির কারিগরদের ও বিশ্রামের সময় নেই।

সমান তালে চলছে স্বর্ণ তৈরি ও বিক্রয়ের কাজ। গ্রাহকদের মধ্যে শতকরা ৯০ শতাংশ মহিলা।

টেকনাফ পৌর এলাকার স্বর্ণ ও জুয়েলারি মার্কেট পরিদর্শন করে দেখা যায়, দোকানগুলোতে কোনো মূল্য তালিকা নেই।

অথচ বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার অনুযায়ী প্রতিটি স্বর্ণের দোকানে চলমান মূল্য তালিকা থাকা নিয়ম রয়েছে।

তাদের কাছে জিজ্ঞাসা করা হলে তারা জানায়, এখানে কেউ মূল্য তালিকা সম্পর্কে জানতে চাইনা এবং কোনো সংস্থা কোনোদিন অভিযানও চালাইনি।

স্বর্ণের মূল্য সম্পর্কে জানতে চাইলে স্বর্ণকারেরা জানায়, বর্তমানে টেকনাফে ব্যাটার প্রতি ভরি ৪০/৪৫ হাজার টাকা, গিন্নী প্রতি ভরি খাইটসহ ৩৫ হাজার টাকা। অথচ কক্সবাজার জেলায় প্রতি ভরি ব্যাটার স্বর্ণের দাম ৩০/৩৫ হাজার টাকা, গিন্নী ২০/২৫ হাজার টাকা।

কিন্তু টেকনাফে এর কোনো নিয়ম নীতি ছাড়ায় ইচ্ছা অনুযায়ী বিক্রি করছে স্বর্ণ।

পরিদর্শনে দেখা যায়, অধিকাংশ ক্রেতা মহিলা। অনুসন্ধানে জানাগেছে দেশের প্রশাসন ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থা মানব ও ইয়াবা পাচারকারীদের বিরুদ্ধে সাড়াশী অভিযান, ক্রসফায়ার, ব্যাংকের গচ্ছিত টাকা ভূ-সম্পদ ইত্যাদিতে আঘাত হানচ্ছে।

ফলে ঐ সু-চতুর ইয়াবা ও মানব পাচারকারীরা ব্যাংক থেকে জমাকৃত টাকা উত্তোলন করে স্বর্ণ ক্রয় করচ্ছে। এতে নিজে ব্যবহার না হয়ে মহিলাদের মাধ্যমে স্বর্ণ গুলো ক্রয় করছে। এত দরদামের কোন হিসাব নিচ্ছেনা।

এ সংক্রান্ত বিষয়ে অনুসন্ধান করলে আসল রহস্য বেরিয়ে আসবে বলে স্থানীয়দের ধারণা।

অপরদিকে টেকনাফ পৌর ও উপজেলার হাটবাজার সমূহের স্বর্ণ ও জুয়েলারি দোকানের মালিক ও কর্মচারী অধিকাংশ মিয়ানমারের নাগরিক।

এদের বেশির ভাগই রাখাইন ও হিন্দু সম্প্রদায়ের যাদের মধ্যে অনেকেই বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারেনা এবং বোঝে না। ফলে ঐ সমস্ত দোকানে স্থানীয় কিছু ঐ সম্প্রদায়ের বাংলাদেশি লোক বসে দোকান চালাচ্ছে।

এ অবৈধ ভাবে গড়ে উঠা নিয়মনীতি বহিভূক্ত স্বর্ণকারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া একান্ত জরুরি বলে স্থানীয়রা জানায়।

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  • সর্বশেষ
  • সবচেয়ে পঠিত

জনমত জরিপ

অং সাং সু চির নোভেল পুরুষ্কার প্রত্যাহার করার জন্য আপনারা কি একমত ?

View Results

Loading ... Loading ...
ব্রেকিং নিউজ