শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতনের ঘটনায় মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের তীব্র নিন্দা

সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৭ 118 views 0
রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতনের ঘটনায় মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের তীব্র নিন্দা

প্রথম নিউজ আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাখাইন রাজ্যে সাম্প্রতিক সহিংসতায় দেড় লক্ষাধিক রোহিঙ্গার বাংলাদেশে পালিয়ে আসার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর।

 

মিয়ানমারের রাখাইনে সংঘাতপূর্ণ অঞ্চলে ত্রাণকর্মীদের প্রবেশাধিকার দিতে দেশটির সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

 

এদিকে, রাখাইনে মুসলমানদের ওপর নির্যাতন বন্ধে উদ্যোগ নিতে বিশ্বের সব দেশকে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি রুশনারা আলী।

 

সংঘাতপূর্ণ রাখাইন থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে ঢুকে পড়া রোহিঙ্গাদের অনেকেই ক্ষত বয়ে বেড়াচ্ছে। কারও গায়ে গুলির চিহ্ন আবার কাউকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে।

 

মিয়ানমারের সামিরক বাহিনী ও স্থানীয়দের এমন নৃশংসতা সইতে না পেরে জন্মভূমি ছেড়ে পালিয়ে আসার কথা জানান রোহিঙ্গারা।

 

রাখাইনে রোহিঙ্গা নির্মূলের অভিযানে প্রতিনিদিনই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিক্ষোভ হয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার ভারতের নয়াদিল্লি ও কলকাতায় মিয়ানমার সরকার বিরোধী বিক্ষোভ হয়। সন্ত্রাস-বিরোধী অভিযানের নামে রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা বন্ধের আহবান জানায় বিক্ষোভকারীরা।

 

একদিন আগে অং সান সুচি রাখাইন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করলেও, সেখানে আবারও নতুন করে রোহিঙ্গা মুসলিম অধ্যুষিত একটি গ্রাম জ্বালিয়ে দেয়ার খবর পাওয়া গেছে।

 

এর আগে সরকারের পক্ষ থেকে রোহিঙ্গারা নিজেরাই তাদের ঘর-বাড়িতে আগুন দিচ্ছে বলে দাবি করা হলেও, একদল সাংবাদিক সংঘাতপূর্ণ কিছু অঞ্চল পরিদর্শনের পর তারা সেই দাবির বিষয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন।

 

এ অবস্থায় রাখাইনের সংঘাতপূর্ণ এলাকায় মানবিক সহয়তায় পৌঁছানোর অনুমুতি দিতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

 

রোহিঙ্গা সমস্যার জন্য কাউকে দায়ী না করলেও, সঙ্কট সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর।

 

এ সময়  মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র বলেন,’রাখাইনে ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেয়া ও সেখানে বহু মানুষ বাস্তুচ্যুত হওয়ার ঘটনায় আমরা উদ্বিগ্ন। মানবাধিকার লঙ্ঘনের এসব অভিযোগ আমরা খতিয়ে দেখছি।

 

সামরিক বাহিনী কিংবা বিদ্রোহী যারাই এসব কাজ করুক না কেন, আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই। মিয়ানমারের সরকারের উচিত দ্রুত রাখাইন পরিস্থিতি শান্ত করার উদ্যোগ নেয়া।’

 

বিশ্ব সম্প্রদায়ের সম্মিলিত উদ্যোগ ছাড়া রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ বংশোদ্ভূত ব্রিটেনের লেবার দলীয় সংদস সদস্য রুশনারা আলি।

 

বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। ব্রিটেনের বিরোধী দলীয় নেতা জেরেমি করবিনও রোহিঙ্গাদের সঙ্গে অমানবিক আচরণ বন্ধে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

 

তাদেরকে মিয়ানমারের নাগরিকত্ব প্রদানের মাধ্যমে সঙ্কট সমাধানে ভূমিকা রাখতে স্টেস কাউন্সিলর অং সান সুচিকে পরামর্শ দেন লেবার পার্টির এই শীর্ষ নেতা।

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনমত জরিপ

অং সাং সু চির নোভেল পুরুষ্কার প্রত্যাহার করার জন্য আপনারা কি একমত ?

View Results

Loading ... Loading ...
ব্রেকিং নিউজ