Wednesday, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

নিবন্ধন বাতিল প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশন অসত্য বক্তব্য দিয়েছে : জামায়াত

জুন ৪, ২০১৫ 18 views 0
নিবন্ধন বাতিল প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশন অসত্য বক্তব্য দিয়েছে : জামায়াত

প্রথম নিউজ প্রতিনিধি : গত ১ জুন সংসদ সচিবালয়কে পাঠানো এক তথ্য বিবরণীতে নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সহকারী সচিব মোঃ আতিয়ার রহমান ‘বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল হয়েছে’ মর্মে যে তথ্য দিয়েছেন তাকে অসত্য আখ্যায়িত করে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী।

 

দলের নায়েবে আমির ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান আজ বুধবার এক বিবৃতিতে এ ব্যাপারে বলেন, গত ১ জুন সংসদ সচিবালয়কে পাঠানো এক তথ্য বিবরণীতে নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সহকারী সচিব মোঃ আতিয়ার রহমান ‘বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল হয়েছে’ মর্মে যে অসত্য তথ্য পরিবেশন করেছেন আমি তার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

 

তিনি তার প্রেরিত তথ্য বিবরণীতে প্রকৃত সত্য গোপন করে দেশের আইন ও সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন এবং নির্বাচন কমিশনের নিরপেক্ষতা ও ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ণ করেছেন।

 

তিনি বলেন, তরিকত ফেডারেশনের দায়ের করা এক মামলায় হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চ বিভক্তি রায়ে জামায়াতের নিবন্ধন অবৈধ বলে রায় প্রদান করেন। একজন বিচারপতি রায়ে ভিন্নমত প্রদান করেন।

 

হাইকোর্ট ডিভিশন এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার বিষয়ে সার্টিফিকেট প্রদান করেন। বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর পক্ষ থেকে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করা হয়। আপিল মামলাটি এখনো নিষ্পত্তি হয়নি।

 

জামায়াতের নিবন্ধনের ব্যাপারটি এখনো সুপ্রিম কোর্টে বিচারাধীন রয়েছে। অথচ এই বিষয়টি নির্বাচন কমিশন এড়িয়ে গিয়ে মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে ‘জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল হয়েছে’ মর্মে তথ্য প্রকাশ করে অসত্য বক্তব্য প্রদান করেছেন।

 

নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষতা হারিয়ে সংসদ সচিবালয়ে অসত্য তথ্য পরিবেশন করে দেশের আইন ও সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন। উচ্চ আদালতে বিচারাধীন মামলার বিষয়ে অসত্য তথ্য পরিবেশন করে নির্বাচন কমিশন আদালতের প্রতি অবজ্ঞা প্রদর্শন করেছেন। আমরা মনে করি বিচারাধীন বিষয়ে বক্তব্য দিয়ে বিচার প্রভাবিত করার চেষ্টা করা হয়েছে।

 

জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন সম্পর্কে বিভ্রান্তিকর অসত্য বক্তব্য প্রদান করা থেকে বিরত থাকার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট মহলের প্রতি আহ্বান জানান।

 

জেলগেট থেকে গ্রেফতারের নিন্দা

চট্টগ্রাম মহানগরী জামায়াতে ইসলামীর আমির ও সাবেক এমপি মাওলানা শামসুল ইসলামকে জেলগেট থেকে আবার আটক করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমির জনাব মকবুল আহমাদ আজ এক বিবৃতি দিয়েছেন।

 

বিবৃতিতে তিনি বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরী জামায়াতে ইসলামীর আমির ও সাবেক এমপি মাওলানা শামসুল ইসলাম আদালতের নির্দেশে আজ ৩ জুন দুপুরে চট্টগ্রাম কারাগার থেকে মুক্তি লাভ করার পর মিথ্যা মামলায় কারাগারের গেট থেকে পুনরায় গ্রেফতার করে তার উপর জুলুম করা হয়েছে। এ ঘটনার দ্বারা প্রমাণিত হয় যে, দেশে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন নেই।

 

বর্তমান সরকার আইন-আদালত, বিচার বিভাগ কোন কিছুই মানেন না। রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে মাসের পর মাস, বছরের পর বছর সরকার অন্যায়ভাবে মিথ্যা মামলায় জেলে আবদ্ধ করে রেখে তাদের উপর চরম জুলুম-নির্যাতন চালাচ্ছে। রাজনৈতিকভাবে হয়রানী করার হীনউদ্দেশ্যেই সরকার জামায়াত নেতা মাওলানা শামসুল ইসলামকে পুনরায় জেলগেট থেকে আটক করেছে। আমি সরকারের এই জুলুম-নির্যাতন ও রাজনৈতিক প্রতিহিংসার তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

 

তিনি বলেন, সরকার বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়ে নেতা-কর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার ও হত্যা করে জামায়াতে ইসলামীকে নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্র করছে। অত্যাচার-নির্যাতন চালিয়ে নেতা-কর্মীদেরকে গ্রেফতার করে জেলে আবদ্ধ রেখে কিংবা হত্যা করে কোন আদর্শবাসী আন্দোলনকে ধ্বংস করা যায় না।

 

তিনি মাওলানা শামসুল ইসলামসহ জামায়াতে ইসলামীর গ্রেফতারকৃত সব নেতা-কর্মীকে অবিলম্বে মুক্তি প্রদান করার জন্য আহ্বান জানান। বিজ্ঞপ্তি ।

জনমত জরিপ

অং সাং সু চির নোভেল পুরুষ্কার প্রত্যাহার করার জন্য আপনারা কি একমত ?

View Results

Loading ... Loading ...
ব্রেকিং নিউজ