প্রকাশ : শনিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৭
আমাকে মেরে ফেলা হবে, মৃত্যুর আশঙ্কায় বাসা ছেড়েছি : রুবি
আমাকে মেরে ফেলা হবে, মৃত্যুর আশঙ্কায় বাসা ছেড়েছি : রুবি

প্রথম নিউজ অনলাইন ডেস্ক : আমাকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলে হত্যা করা হবে। আমাকে মেরে ফেলে হবে, তারপর বলা হবে আমি সুইসাইড করেছি। আমাকে মানসিক রোগী হিসেবে প্রমাণ করার চেষ্টা চলছে কিন্তু প্রমাণ করে দেখাক তো। আর জীবন রক্ষার জন্য আমি পূর্বের বক্তব্য প্রত্যাহার করে পরের ভিডিও গুলো করি। মৃত্যুর আশঙ্কায় আমি স্বামীর বাসা ছেড়েছি।

 

আজ সকালে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের বাংলা টেলিভিশন চ্যানেল ‘টাইম টেলিভিশন’ এসব কথা বলেন রুবি সুলতানা। তিনি বলেন, ফিলাডেলফিলফিয়াতে আমাকে আইসোলেটেড করে রাখা হয়েছিল মানসিক ভারসাম্যহীন করে রাখা হয়েছিল। আমি ডিপ্রেশনে ছিলাম ২০১১ সাল পর্যন্ত, কিন্তু কখনোই মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলাম না।

 

রুবির ভাষ্যমতে, স্বামীর বাসা ফিলাডেলফিয়াতে তিনি আর ফিরবেন না, সেখানে এখন আর তার নিরাপত্তা নেই। গেলেই মেরে ফেলতে পারে। তিনি জানান শিখা নামের একজন নিউ ইয়র্কে তাকে আশ্রয় দিয়েছেন।

 

এজন্যই টাইম টেলিভিশনে এসে ফের প্রথম দেওয়া ভিডিওর মতোই হত্যা সম্পর্কিত কথাগুলো বলেন রুবি।

 

অসংখ্য ভিডিও দিয়ে কেন বিভ্রান্ত করলেন এমন প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি স্বামীর চাপে পড়েই সেসব কথা বলি। আমি প্রথম ভিডিও দেওয়ার পরে আমাকে বাসায় নিয়ে যায় আমার স্বামী। পরে তিনি আমাকে বলে আরেকটা ভিডিওতে বলে দিতে ‘তুমি মানসিক ভারসাম্যহীন,’ যা বলেছো ভুল বলেছে। কিন্তু এরপর বুঝি সত্যিই তারা আমাকে মানসিক ভারসাম্যহীন প্ল্যান করছে। এমনকী মেরে ফেলার চিন্তাও করছে। কিন্তু যে বাসা ছেড়েছি, সে বাসায় ফিরবো না। ওখানে আমার মৃত্যুর আশঙ্কা রয়েছে, আমাকে মেরে ফেলা হতে পারে।

 

তিনি নিরাপত্তা পেলে বাংলাদেশের তদন্ত কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলবেন। এ বিষয়ে রুবি বলেন, আমি ৮ নম্বর আসামি আমি জানি না আমাকে কীভাবে ফাঁসানো হবে। যে দেশে ২১ বছরেও একটি হত্যার বিচার হয় না, সেখানে গিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগবো এটাই স্বাভাবিক। তবে পুরো নিরাপত্তা পেলে আমি তদন্ত কর্মকর্তাদের সাথে যা জানি শুরু থেকে সব বলবো।

 

সম্প্রতি ফেসবুক দেয়া ভিডিও বার্তা সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রের এই বাংলা টেলিভিশনে রুবি বলেন, আমি এতোদিন যা জানতাম তা পরিস্কার নয়। তবে এবার আমার ছেলের কাছ থেকে শুনে ক্লিয়ার হয়েছি। আমি তখন বলতে চেয়েছি, হত্যার সম্ভাবনা রয়েছে কিন্তু আমি হত্যা বলেছি। তবে আমি সমস্ত কিছু চিন্তা করেই মনে হচ্ছে এটা হত্যাকাণ্ড।

 

উপস্থাপকের এক প্রশ্নের জবাবে রুবি বলেন, আসলে আমাকে প্রশ্ন করছেন। আমাকে এতো প্রশ্ন করছেন যে কেউ তো সামিরাকে প্রশ্ন করে না। সামিরা কেন সামনে আসে না। এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, সামিরার পরিবারের অনেক ঘটনা ঘটেছে। ওদের অনেক ঘটনা আমি জানি।

 

গত সোমবার বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভেনিয়ায় থাকা রুবি ফেসবুকে এক ভিডিওবার্তায় সালমান শাহর মৃত্যু নিয়ে কথা বলেন, যা এখন ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল।

 

রুবি বলেন, সালমান শাহ আত্মহত্যা করে নাই। সালমান শাহকে খুন করা হইছে, আমার হাজব্যান্ড এটা করাইছে আমার ভাইরে দিয়ে। সামিরার ফ্যামিলি করাইছে আমার হাজব্যান্ডকে দিয়ে। আর সব ছিল চাইনিজ মানুষ।