বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

‘ক্যান্সার মানে মৃত্যু, এই ধারণা আর নয়’

জুন ১৩, ২০১৫ 63 views 0
‘ক্যান্সার মানে মৃত্যু, এই ধারণা আর নয়’

প্রথম নিউজ ডেস্ক কারও শরীরে ক্যান্সারের জীবাণু পাওয়া গেছে মানেই আমাদের সমাজে ধরে নেয়া হয় ‍মানুষটির নিশ্চিত মৃত্যু হচ্ছে।  বলা হয়, ‘ক্যান্সার মানে আর বেশিদিন নয়’।

কিন্তু সেই ধারণা পাল্টে দিচ্ছে ভারতের কোলকাতার অ্যাপোলো গ্লিনিগ্যালস হসপিটাল। তারা বলছে, ‘ক্যান্সার মানে আর বেশিদিন নয়-এই ধারণা আর নয়।’ ‘ক্যান্সার মানে মৃত্যু, এই ধারণা আর নয়’।

তারা বলছে, ‘ক্যান্সার হেজ নো আনসার’ এই ধারণারও এখন কোন যুক্তি নেই। তাদের মতে, এখন ‘ক্যান্সার হেজ অ্যা ডেফিনিট আনসার’। শুধু যেতে হবে কোলকাতায় অ্যাপোলাতে, তাহলেই মিলছে ক্যান্সারের সমাধান।

ভারতের কোলকাতার অ্যাপোলো গ্লিনিগ্যালস হসপিটালের চারজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ক্যান্সার, কিডনি, হৃদরোগসহ বিভিন্ন অসুখের সহজ সমাধানের পথ বাতলেছেন এভাবে।  তাদের মতে, সনাতন পদ্ধতির পরিবর্তে আধুনিক রোবটিক চিকিৎসার মাধ্যমে মানুষের দুর্ভোগ কিভাবে কমাতে হয় সেই পথের সন্ধান দিতেই তারা বাংলাদেশে এসেছেন।

শনিবার (১৩ জুন) নগরীর জামালখানে সিনিয়রস ক্লাবে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন চার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক। তাদের সঙ্গে ছিলেন কোলকাতার অ্যাপোলো গ্লিনিগ্যালস হসপিটালের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার সোমনাথ ভট্টাচার্য।

ক্যান্সারের চিকিৎসা প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে রেডিয়েশন অনকোলজিস্ট ডা. আখতার জাবেদ বলেন, যদি প্রাইমারি স্টেজে ধরা পড়ে তাহলে আমরা বলব ক্যান্সার এখন আর তেমন বড় কোন রোগই নয়। সরাসরি কোলকাতায় অ্যাপোলোতে চলে আসুন। অপারেশন না করে, ক্যামোথেরাপি না দিয়ে কিভাবে এ রোগ বিদায় করা যাবে শরীর থেকে, তার সব ব্যবস্থা অ্যাপোলোতে আমরা রেখেছি। ক্যান্সারের বেস্ট ডায়াগনোসিসটাই এখন অ্যাপোলোতে হয়।

তিনি বলেন, ভারতের ‍পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য, বাংলাদেশ, মায়ানমারের মধ্যে ক্যান্সারের জন্য একমাত্র বিশেষায়িত হাসপাতাল হচ্ছে কোলকাতার অ্যাপোলো।

অ্যাপোলোর নেফ্রোলজিস্ট কনসালটেন্ট ডা.মানস কুমার জয়ন বলেন, হাইপার টেনশন হচ্ছে লাইফস্টাইল রোগ। হাইপার টেনশনের পুরো চাপটাই গিয়ে পড়ে কিডনির উপর। এতে কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এখন মূল যে ব্যাপারটা আছে সেটা হচ্ছে কিডনি স্থানান্তর করা। অ্যাপোলোতে স্থানান্তরের সবচেয়ে অত্যাধুনিক ব্যবস্থাটাই আছে।

আবার এখন এসেছে রোবোটিক সার্জারি। যেখানে আমার হাত পৌঁছাতে পারেনা সেখানে পৌঁছে যাচ্ছে রোবটিক যন্ত্র।

অ্যাপোলোর রোবটিক গাইনী অনকোলজিস্ট ডা.মানস চক্রবর্তী বলেন, পেট কেটে সার্জারি করার দিন শেষ। রক্তপাতহীন অপারেশন এখন আর ধারণা নয়, কোলকাতার অ্যাপোলোতে সেটা এখন পজিবল একটা ট্রিটমেন্ট।

তিনি বলেন, ‘রোবটিক যন্ত্রের মাধ্যমে অপারেশন হচ্ছে অ্যাপোলোতে। নারীরা যেদিন হাসপাতালে ভর্তি হবেন, কথা দিচ্ছি পরদিনই সুস্থ হয়ে বাড়ি পৌঁছুতে পারবেন।’

তিনি বলেন, ‘কোলাকাতার অ্যাপোলোতে আমরা যে ট্রিটমেন্ট দিই লন্ডন, প্যারিসের ডাক্তাররাও বলছেন এটাই সঠিক।’

অ্যাপোলো গ্লিনিগ্যালস হসপিটালের কার্ডিওলজিস্ট ডা.শংকর শুভ দাশ সেই প্রতিষ্ঠ‍ানে হৃদরোগের চিকিৎসার বিস্তারিত বর্ণনা দেন।

অ্যাপোলো গ্লিনিগ্যালস হসপিটালের সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার সোমনাথ ভট্টাচার্য জানান, বাংলাদেশ থেকে প্রতিদিনি কমপক্ষে এক’শ রোগি অ্যাপোলোতে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হচ্ছেন। বাংলাদেশি রোগিদের জন্য অ্যাপোলো আলাদা অফিস বানিয়েছে।

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনমত জরিপ

অং সাং সু চির নোভেল পুরুষ্কার প্রত্যাহার করার জন্য আপনারা কি একমত ?

View Results

Loading ... Loading ...
ব্রেকিং নিউজ