বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭

বাংলাদেশের কৌশল নিয়ে প্রশ্ন তুললেন ভারতীয় জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার

জুন ১৫, ২০১৫ 36 views 0
বাংলাদেশের কৌশল নিয়ে প্রশ্ন তুললেন ভারতীয় জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার

প্রথম নিউজস্পোর্টস ডেস্কদীপ দাশগুপ্ত ভারতীয় জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার।

এখন কলকাতার আনন্দবাজারের হয়ে কলাম লেখেন। ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যকার একমাত্র টেস্টের পর আনন্দবাজারে লেখা এক কলামে তিনি বাংলাদেশের কৌশল নিয়ে প্রশ্ন তোলেন।
লেখাটির শিরোনাম ছিল ‘স্ট্র্যাটেজি নিয়ে প্রশ্নের মুখে বাংলাদেশ’। পাঠকদের জন্য লিখাটি তুলে ধরা হলো-

আট ব্যাটসম্যানে খেলে বাংলাদেশ হয়তো টেস্টটা ড্র রাখতে পারল (সৈজন্যে বৃষ্টি)। কিন্তু প্রশ্নটা থেকে গেল দূরপাল্লার পরিকল্পনায় কি এটা সঠিক স্ট্র্যাটেজি?
এই টেস্টের প্রথম দিন থেকেই এই বিষয়টা নিয়ে প্রশ্ন তুলে আসছি আমি।

এই বিষয়ে বাংলাদেশের মানসিকতা আমাকে বরাবরই অবাক করেছে। এই নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই যে বাংলাদেশ দলটা প্রতিভাবান ক্রিকেটারে ভরা।

কিন্তু, একমাত্র টেস্টে মানসিকতার দিক থেকে ওদের ততটা উন্নত বলে মনে হয়নি এক বারও। ফতুল্লায় বৃষ্টির জন্য হয়তো ওদের এই মানসিকতা চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ল না।

তবে এই মানসিকতা নিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশ বেশি দূর এগোতে পারবে বলে মনে হয় না।

ওয়ান ডে অবশ্য একেবারে অন্য ধরনের ক্রিকেট। আর বাংলাদেশকে এই ক্রিকেটে বরাবরই অনেক বেশি আত্মবিশ্বাসী ও আগ্রাসী লেগেছে।

বিশ্বকাপের পর পাকিস্তান সিরিজে ভাল ফল করায় নিশ্চয়ই ওদের ওয়ান ডে দলের আস্থা আরও বেড়েছে। টেস্ট টিমে প্রকৃত বোলারের চেয়ে অলরাউন্ডারের সংখ্যা বেশি থাকায় ওদের সমালোচনা হতে পারে।

কিন্তু এই বৈশিষ্ট্যই কিন্তু ওদের ওয়ান ডে ক্রিকেটে শক্তিশালী করে তুলতে পারে। সাকিব ও মাহমদুল্লার মতো অলরাউন্ডাররা যেমন টপ অর্ডারে ব্যাট করতে পারে, তেমন শুরু থেকে বোলিং-ও করতে পারে।

এই ধরনের ক্রিকেটাররাই দলে শক্তি ও ভারসাম্য এনে দেয়। রুবেল, লিটন দাসরা এসে যাওয়ায় দলটার মধ্যে তাজা ভাব আরও বাড়বে।

ভারতকে তাই টেস্টে অতটা প্রতিদ্বন্দ্বীতার মুখে পড়তে না হলেও মনে হয় ওয়ান ডে-তে লড়াইটা এতটা সহজ হবে না। প্রতিপক্ষ বাংলাদেশকে কম গুরুত্ব দেয়াটা যে মস্ত বড় ভুল হবে, এটা বলাই যায়।

ভারতের ওয়ান ডে দল নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। মহেন্দ্র সিংহ ধোনির দল বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্ট।

তাই ওদের দাপট নিয়ে কোনও প্রশ্ন নেই। কিন্তু বাংলাদেশ ঘরের মাঠে পাকিস্তানকে যে ভাবে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিল, তেমনই খেলে দিতে পারলে আর যাই হোক সিরিজটা একপেশে হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না।

ভারত-বাংলাদেশ মানেই যে একটা একঘেয়ে সিরিজ, এই ধারণাটা যেন ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে গেঁথে না যায়। তাতে ক্রিকেটেরই ক্ষতি। এই ধারণা হতে না দেয়ার দায়িত্ব বাংলাদেশেরই।

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনমত জরিপ

অং সাং সু চির নোভেল পুরুষ্কার প্রত্যাহার করার জন্য আপনারা কি একমত ?

View Results

Loading ... Loading ...
ব্রেকিং নিউজ