Wednesday, ১৬ আগষ্ট, ২০১৭

বাংলাদেশকেই সেমিতে  চেয়েছিলেন অশ্বিন!

জুন ১৩, ২০১৭ 296 views 0
বাংলাদেশকেই সেমিতে  চেয়েছিলেন অশ্বিন!

প্রথম নিউজ স্পোর্টস ডেস্ক : ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের চাপ-তাপ কমে গেছে। যা চলমান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতেই আবার প্রমাণিত হয়েছে। গোটা ক্রিকেট দুনিয়ায় না হলেও উপমহাদেশে বাংলাদেশ-ভারত লড়াই এখন অন্যতম জমজমাট বিষয়।

 

ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে তাই দুই প্রতিবেশীর ম্যাচ অনেক বড় উত্তেজনার খোরাক। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে বৃহস্পতিবার এজবাস্টনে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও ভারত।

 

 

 

শক্তিমত্তা, র্যাংকিং তথা দল হিসেবে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। তা সবারই জানা। তবে নির্দিষ্ট দিনে ২২ গজের লড়াইয়ে সেই ব্যবধান ঘুচিয়ে ফেলা সম্ভব, তা কয়েকবারই মাশরাফিরা দেখিয়েছেন। ২০১৫ সালে ঘরের মাঠে ভারতের বিরুদ্ধে ২-১ এ সিরিজ জিতেছিল বাংলাদেশ।

 

২০০৭ বিশ্বকাপে শচীন-সৌরভদের ভারতকে হারিয়েছিল হাবিবুল বাশারের দল। যে হারে বিশ্বকাপ থেকেই বাদ পড়েছিল রাহুল দ্রাবিড়ের দল। ২০১৫ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে অবশ্য মহেন্দ্র সিং ধোনির দলের কাছে হেরেছিল বাংলাদেশ।

 

 

 

দুদলের বৃহস্পতিবারের সেমিফাইনাল নিয়ে তাই আলোচনা ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। ভারতের অফস্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন বলেছেন, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিতে বাংলাদেশকেই আশা করেছিলেন তিনি। টুর্নামেন্টের শুরুতে প্রস্তুতি ম্যাচের সময় যা সতীর্থদের কাছে বলে অবশ্য হাসির পাত্র হয়েছিলেন তিনি।

 

 

 

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর মধ্যে দিয়ে শেষ চারে বাংলাদেশকেই প্রতিপক্ষ হিসেবে পেল ভারত। অশ্বিন গোটা দলকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, বাংলাদেশকে হালকাভাবে না নেওয়া উচিত হবে না। ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশ শক্ত প্রতিপক্ষ এবং নিজেদের দিনে বাংলাদেশকে সেরা দল মনে করেন তিনি।

 

 

 

গত রবিবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জয়ের পর স্টার স্পোর্টসকে দেয়া সাক্ষাত্কারে অশ্বিন বলেছেন, ‘আমাদের সম্ভবত বাংলাদেশের সাথে খেলা। তারা ভাল ফর্মে আছে। প্র্যাকটিস ম্যাচের সময় আমি ড্রেসিংরুমে বলেছিলাম যে, বাংলাদেশের সাথে আমাদের সেমিফাইনালে দেখা হতে পারে।

 

ড্রেসিংরুমে আমার বন্ধুরা কথাটা হেসেই উড়িয়ে দিয়েছিলো। কিন্তু, দেখো এখন ওরাই সেমিতে! আমি মনে করি তারা অনেক কঠিন প্রতিপক্ষ।’

 

ইংল্যান্ডের কাছে হার দিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি শুরু করেছিল বাংলাদেশ। পরে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ম্যাচটি বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হয়েছে। শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৫ উইকেটে হারিয়েছিল বাংলাদেশ।

 

 

৩৩ রানে চার উইকেট পড়ার পরও সাকিব-মাহমুদউল্লাহর জোড়া সেঞ্চুরিতে অসাধারণ জয় পায় মাশরাফির দল।

 

 

 

বাংলাদেশকে গুরুত্ব দেওয়াই ভালো হবে উল্লেখ করে অশ্বিন বলেছেন, ‘আপনি জানেন বাংলাদেশ কতটা ভালো খেলতে পারে, বিশেষ করে তাদের দিনে তারাই সেরা। এখন তারা সেমিতে। তাদের বিরুদ্ধেই খেলতে যাচ্ছি, আমাদের জন্য ভালো হবে ওদেরকে হালকাভাবে না নেওয়া।’

 

 

 

অভিজ্ঞ ক্রিকেটাররা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে বলে মনে করেন অশ্বিন। ডানহাতি এ অফস্পিনার বলেছেন, ‘বাংলাদেশ দল হিসেবে দারুণ ছন্দে আছে। অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের মাধ্যমে দারুণ ভিত গড়েছে তারা, যেটা আমরা দেখেছি।’

 

 

 

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির মতো বড় আসর। ইতোমধ্যেই টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়েছে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা। সেমিতে খেলবে এশিয়ার তিন দল বাংলাদেশ, ভারত ও পাকিস্তান বা শ্রীলঙ্কা। বিষয়টা উপভোগ করছেন অশ্বিন।

 

তিনি বলেছেন, ‘এটা আসলেই এশিয়ার ক্রিকেটের জন্য ভালো। এবং এটা সত্যিই অসাধারণ। এশিয়ার তিনটা দেশ আইসিসির মেজর ইভেন্ট চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিতে খেলছে।’

 

 

 

 

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনমত জরিপ

অং সাং সু চির নোভেল পুরুষ্কার প্রত্যাহার করার জন্য আপনারা কি একমত ?

View Results

Loading ... Loading ...
ব্রেকিং নিউজ